মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
পাতা

নলডাঙ্গা উপজেলার পটভূমি

* ১৯৪৭ সালে স্থানীয় জনগনের উদ্যোগে নাটোর জেলার নাটোর সদর উপজেলাধীন বার নই নদীর তীর ঘেঁষে নলডাঙ্গায় প্রতিষ্ঠত হয় নলডাঙ্গার হাট। আর একেই ঘিরে নলডাঙ্গা নাম করণের সুচনা হয়। ২৭ মে ২০১৩ইং/১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২০ তারিখে অনুষ্ঠিত প্রশাসনিক পুনর্বিন্যাস  সংক্রামত্ম জাতীয় বাসত্মবায়ন কমিটি  (নিকার) এর ১০তম বৈঠকের সিদ্ধামত্ম অনুযায়ী সরকার কর্তৃক নাটোর জেলার নাটোর সদর উপজেলার ১টি পৌরসভা (নলডাঙ্গা পৌরসভা) এবং ৫টি ইউনিয়ন সমন্বয়ে স্থানীয় সরকার বিভাগের ০৭ জুলাই, ২০১৩ তারিখের ৪৬.০৪৬.০১৮.০০.০০.০১২.২০১২-৭৭১নং প্রজ্ঞাপন মুলে ‘‘নলডাঙ্গা’’ উপজেলা গঠিত হয়।

 

 

উন্নয়ন শুরু:

১৯৪৭ সালে স্থানীয়দের উদ্যোগে নলডাঙ্গার হাট প্রতিষ্ঠা করা হয়। ওই হাটকে ঘিরেই নলডাঙ্গার উন্নয়নের গড়াপত্তন শুরু। সেসময় নলডাঙ্গা পাশ্ববর্তী হালতিবিল ধান ও মাছের  জন্য প্রাচুর্য্য ছিল। সেখানকার ধান, মাছ এবং বারনই নদীর মাছ ও নদীপথ এই হাটের জন্য আর্শীবাদ হয়ে দাঁড়ায়। সপ্তাহে দুইদিন শনিবার ও মঙ্গলবার হাট বসে। ওই সময় দুর-দুরান্তের মানুষ নলডাঙ্গা হাটের অপেক্ষায় থেকেছে। শনিবার এবং মঙ্গলবার এলেই নলডাঙ্গা হাটে এসেছেন কেউ দোকান পসরা নিয়ে, আবার অনেকে এসেছেন বানিজ্য করতে। এখান থেকে পিয়াজ, আলু, পান ও সবব্জি কিনতে দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে মহাজনরা এসেছেন। নলডাঙ্গার হাটকে ঘিরে ১৯৬১ সালে ব্রক্ষপুর ইউনিয়ন পরিষদ ভবন নির্মান এবং ১৯৬২ সালের ১ আগষ্ট নলডাঙ্গা রেলওয়ে ষ্টেশনগড়ে উঠে। বারনই নদীর ধারে হাট হওয়ায় এখানে একটি নৌ-বন্দরও গড়ে উঠে। রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের মহাজনরা মালামাল পরিবহনে নৌপথ ব্যবহার করেছেন। হাটকে ঘিরে ১৯৬৭ সালে নলডাঙ্গা হাইস্কুল, ১৯৭২ সালে শহীদ নজমুল হক ডিগ্রি কলেজ, ১৯৭৬ সালে রুপালী ব্যাংক বীমাসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান গড়ে উঠে।

২০০০সালের ১৯ জানুয়ারীনাটোর সদর উপজেলার ব্রহ্মপুর, মাধনগর, খাজুরা, পিপরুল, বিপ্রেবেলঘরিয়া নামের ৫টি ইউনিয়নকে অধিক্ষেত্র নির্ধারণ পূর্বক নলডাঙ্গা পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রটি থানায় (পুলিশ ষ্টেশন) রুপান্তর করা হয়। পরে একই বছরের ২১ জুন তৎকালীন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম নলডাঙ্গা থানাকে আনুষ্ঠানিক ভাবে উদ্বোধন করেন। স্কুল, কলেজ, ব্যাংক, বীমা সব কিছুই এখন হাতের মুঠোয়।

নলডাঙ্গাবাসীর আধুনিক জীবন যাত্রার ব্যবস্থা করতে ২০০৩ সালে প্রতিষ্ঠা করা হয় নলডাঙ্গা পৌরসভা। বর্তমানে প্রতিটি মানুষের মৌলিক চাহিদা মেটাচ্ছে নলডাঙ্গা পৌরসভা। গ্রামীন অর্থনীতির উন্নয়নে ২০০৩ সালে ৩ জানুয়ারী স্থাপন করা হয়েছে দুগ্ধ শীতলীকরন কেন্দ্র ( মিল্কভিটা)। তথ্য যোগাযোগের জন্য ২০০৫ সালের ২৮ ডিসেম্বর টেলিফোন এক্র্চেঞ্জ এবং  একই বছরে ডাকবাংলো নির্মান করা হয়।

১৯৯৯ সালে বারনই নদীর ওপর বিশালাকৃতির ব্রীজ নির্মান কাজ শুরু হলেও ২০০৫ সালের ২৮ ডিসেম্বর  তা উদ্বোধন করা হয়। কারিগরী শিক্ষায় শিক্ষিত করতে একই বছরের ২৮ ডিসেম্বর বাসুদেবপুর এলাকায় গড়ে তোলা হয় কারিগরি প্রশিক্ষন কেন্দ্র। ২০১৪ সালে সোনালী ব্যাংক, ভুমি অফিস, পোষ্ট অফিসসহ বিভিন্ন এনজিওর অফিস স্থাপন করা হয়েছে। ২০১৩ সালের ২৭ মেদুপুরে সচিবালয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে প্রশাসনিক পুনর্বিন্যাস ও বাস্তবায়ন কমিটির ( নিকার) সভায় নলডাঙ্গাকে উপজেলা করার সিদ্ধান্ত হয়।